ল্যাপটপ গরম হওয়ার কারণ ও সমাধান

laptop

ল্যাপটপ গরম হওয়ার কারণ ও সমাধান নিয়ে নিয়ে আজকে আমার পোষ্ট। প্রিয় টেক বাংলা ব্লগ এর টিউনার এবং ভিজিটরগণ কেমন আছেন সবাই? আসাকরি ভালোই আছেন। আমি আজকে আপনাদের সাথে শেয়ার করব দারুন একটি ট্রিকস নিয়ে। উপরের হেডলাইন থেকে নিশ্চয় জানতে পারছেন ল্যাপটপ গরম হওয়া থেকে মুক্তির উপায় নিয়ে আলোচনা করব।

প্রিয় ভিউয়ার, আপনারা কি জানেন? ল্যাপটপ অতিমাত্রায় গরম হলে বিভিন্ন পার্টস নষ্ট হয়ে যায়। প্রিয় টেক বাংলা ব্লগ এর টিউনার এবং ভিজিটরগণ আসুন আমরা টিপসগুলো দেখে নেই।

নতুন ল্যাপটপ কেনার আগে যে ১০টি বিষয় খেয়াল রাখতে হবে।

১. ঘন ঘন চার্জ দেওয়া বন্ধ করুনঃ বেশ লক্ষ করলে দেখা দেখা যায় যে, ল্যাপটপ ব্যবহারকারীরা ঘন ঘন চার্জ দেয়। কিন্তু তারা হয়তো জানেন না যে, ঘন ঘন চার্জ এর কারণে ল্যাপটপের ব্যাটারী ডাউন হয়ে যায়ে। শুধু তাই না, ল্যাপটপের পার্টসও নষ্ট হয়ে যেতে পারে। ল্যাপটপ ঘন ঘন চার্জ করলে চার্জিং পোর্ট শর্ট হওয়ার সম্ভাবন থাকে ফলে ল্যাপটপটি গরম হয়ে যায়। তাই ল্যাপটপ অতিমাত্রায় গরম হওয়া থেকে মুক্তি দিতে অবশ্যই এই ধরনের কাজ থেকে বিরত রাখুন।

২. সমতল স্থানে ল্যাপটপ রাখুনঃ ল্যাপটপ গরম হওয়ার জন্য অনেকটাই দায়ী হচ্ছে অসমতল স্থানে ল্যাপটপ রেখে ব্যবহার করা। বেশিরভাগ ব্যবহারকারীরাই বিছানা বা বালিশের উপর রেখে ব্যবহার করেন। আর এই কারনে ল্যাপটপটি গরম হয়ে যায়। বিছানা বা বালিশের উপর রেখে ব্যবহার করার ফলে বাতাস চলাচলের পথ বন্ধ হয়ে যায়। আর এর জন্য ল্যাপটপটি গরম হয়ে যায়। তাই গরম হওয়া থেকে মুক্ত রাখতে চাইলে এমন যায়গায় ব্যবহার করুন যেন ল্যাপটপটিতে বাতাস ঠিকমত যাতায়াত করে।

৩. কুলিং প্যাড ব্যবহার করনঃ কুলিং প্যাড ব্যবহারের কারনে ল্যাপটপ গরম হওয়া থেকে মুক্তি দেবে। কুলিং প্যাড খুবই প্রয়োজনীয়। যারা অধিক সময় ধরে ল্যাপটপ ব্যবহার করেন তাদের জন্য অবশ্যই কুলিং প্যাড ব্যবহার করাইটাই ভালো। বাজারে অনেক সাইজের কুলিং প্যাড পাওয়া যায় তাই সেখান থেকে আপনার ল্যাপটপের সাইজ অনুযায়ী কুলিং প্যাড কিনে ব্যবহার করুন। এতে করে আপনার ল্যাপটপটি গরম হওয়া থেকে মুক্তি পাবে।

৪. অপ্রয়োজনীয় সফটওয়্যার ব্যবহার বন্ধ রাখুনঃ আমরা পিসিতে অনেক অপ্রয়োজনীয় সফটওয়্যার ব্যবহার করি। আর এতেই বাধে বিপত্তি। আপনার পিসিতে যতটুকু সফটওয়্যার ইনষ্টল করার প্রয়োজন ততটুকুই সফটওয়্যার ব্যবহার করুন। আর মনে রাখতে হবে ট্রায়াল ভার্ষণের কোন সফটওয়্যার ব্যবহার করবেন না। এতে করে আপনার পিসি স্লো এবং গরম হয়ে যাবে। তাই অপ্রয়োজনীয় সফটওয়্যার ব্যবহার করা থেকে মুক্ত রাখতে হবে।

৫. অ্যান্টিভাইরাসঃ পিসিতে ভালো মানের অ্যান্টিভাইরাস ব্যবহার করুন। ল্যাপটপটিতে যদি কোন কারনে ভাইরাস আক্রমন করে তাহলে ল্যাপটপটি স্লো কাজ করবে এবং ল্যাপটপটি গরম হতে থাকবে। হার্ডডিক্সে যখন ভাইরাস আক্রমণ করে তখন কায্যক্রম স্লো হতে থাকে। ফলে ভালো মানের অ্যান্টিভাইরাস ব্যবহার করুন।

পোষ্টটি আপনাদের কেমন লাগল তা অবশ্যই জানাবেন। সবাইকে ধন্যবাদ জানিয়ে আমি আমার পোষ্টটি শেষ করছি। Tech Bangla Blog এর সাথে থাকুন। আমার ব্লগ একাত্তর সাইট।

Add comment