এক সময়কার সেরা জনপ্রিয় গেমসগুলো।

গেমস খেলতে সবাই পছন্দ করেন। আমরা এখন গেমস বলতে উন্নতমানের রেজুলেশন, উচ্চমানের গ্রাফিক্স গার্ড ব্যবহার করে গেমস বুঝি। বর্তমান যুগের ছেলে/মেয়েরা এখন হাইকোয়ালিটি গেমস খেলে। কিন্তু ১০ বছর আগেও এমন হাই-কোয়ালিটি গেমস ছিল না। ঐ সময় ছিল রোড র‌্যাশ, ডিএক্স বল, মোস্তফা গেমস, আলাদিন, ভার্চুল কফ ইত্যাদি।

প্রিয়, টেক বাংলা ব্লগ এর ভিজিটরগণ আমি আজকে আপনাদের সাথে শেয়ার করব ঐ সময়কার সেরা গেমস গুলোর নাম। তাহলে চলুন শুরু করা যাক।

মোস্তফা গেমস: কয়েকটি জনপ্রিয় গেমস এর মধ্যে ছিল মোস্তফা গেমস। আমরা স্কুল শেষে পাশের গেমস এর দোকানে গিয়ে এই গেমস খেলতা। এই গেমসটি খেলতে কয়েন অর্জন করতে হতো। সেই ছেলে বেলায় টিফিনের টাকা বাঁচিয়ে স্কুল পালিয়ে বা বিকাল বেলায় গেমস খেলাম। এখন এই গেমস এর নাম কম মানুষই জানে। বিকালে গেম খেলতে গিয়ে সন্ধা হয়ে যেত তখন মায়ের হাতে কত পিটনি খেয়েছি তার কোন হিসাব ছিল না। তারপরও মাথার থেকে মোস্তফা গেমস যেতো না। সত্যি বলতে এখনও এই গেমস এর কথা আজও ভূলি নাই।

উলফেনস্টেইন থ্রিডি: ওহ্ এই গেসটি ছিল সেই রকম একটা গেমস। এই গেমস শেষ হয়ে গেলেও ফ্লোরে হারিয়ে যাওয়ার সম্ভাবনা ছিল। এই গেমসটি খেলার সময় খেয়াল রাখতে হতো গুলির পরিমান কত আছে এবং হঠাৎ আক্রমনের উপর। গেমসটি খেলতে খুবই মজা ছিল।

আলাদিন: গেমসটি খেলার জন্য জ্বলন্ত কয়লা এবং আপেল সংগ্রহ করতে পয়েন্টন সংগ্রহ করতে হতো। গেমটিতে বোনাস পয়েন্ট পেতে রত্ন সংগ্রহ করতে হতো। গেমটি সবার কাছে জনপ্রিয় ছিল।

ভার্চুয়াল কপ: এই গেমসটির কথা বলব? ঐ আমলে এই গেমসটি ছিল সব থেকে জনপ্রিয়। প্রতিটি কম্পিউটারে এই গেমসটি ইনষ্টল করা ছিল। এই গেমসটি খেলতে মাউস এবং কীবোর্ড ব্যবহার করা হতো। কারণ এই গেমসটি সম্পূর্ণ নিয়ন্ত্রণ করা লাগত কীবোর্ড এবং মাউসের মাধ্যমে।

রোড র‌্যাশ: রোড র‌্যাশ গেমসটি মোটর সাইকেল প্রতিযোগীতা মূলক একটি গেমস। এই গেমসটিতে নিদিষ্ট গন্তব্য স্থানে পৌছাতে হবে প্রতিযোগীতার মাধ্যমে। এই গেমসটিতেও কীবোর্ড ব্যবহার করে খেলতে হয়। গেমসটি সম্পর্কে কি আর বলব। রেসিং গেমস গুলোর মধ্যে এটি ছিল খুবই জনপ্রিয়।

মর্টাল কমব্যাট: এই গেমসটির নাম শুনেই বুঝতে পাছেন গেমসটি কেমন ছিল। গেমসটি বিপক্ষ দলকে বোমা মেরে উড়িয়ে দেওয়া ছিল এটির কাজ। খুব জনপ্রিয় ছিল এই গেমসটি।

প্রিন্স অব পার্সিয়া: এই গেমসট বাজারে আসে ১৯৮৯ সালে। গেমসটি সোজা মনে হলেও খুবই জটিল ছিল। একবার ভূল হয়ে গেলে আবার নতুন করে শুরু করতে হতো।

ডিএক্স বল: ডিএক্স বল গেমটিতে অনেক ভার্ষণ বের হয়েছে। কিন্তু প্রথম এবং দ্বিতীয় ভার্ষণের গেমসটি ছিল সেই কালের। খুব ভালো লাগত এই গেমসটি। সুন্দর সাউন্ড ব্যবহার করে ছিল এই গেমসটিতে।

প্রিয় টেক বন্ধুগন আমার এইেপোষ্টটি আপনাদের কেমন লাগল তা অবশ্যই জানাবেন। আর নিয়োমিত ভিজিট করুন টেক বাংলা ব্লগ সাইটটিতে। সবাইকে ধন্যবাদ জানিয়ে আমি আমার পোষ্টটি শেষ শেষ করছি।

ঘুরে আসতে পারেন ব্লগ একাত্তর সাইট থেকে।

Add comment