ইন্টারনেট থেকে আয় করার সেরা ৫টি ওয়েবসাইট।

ইন্টারনেট থেকে আয় করার সেরা ৫টি ওয়েবসাইট নিয়ে আজকে আমার পোষ্ট। যতই দিন যাচ্ছে ততই অনলাইন থেকে আয় করার প্রবনতা বেড়ে যাচ্ছে। আর এই সুযোগ কাজে লাগাচ্ছে কিছু প্রতারক। প্রতারকের হাত থেকে বাঁচতে চাইলে নিজেকে আগের থেকে প্রস্তুত করে নিতে হবে।

কোন কোন সাইট থেকে আয় করা যায় তার সম্পর্কে আগে জানতে হবে। প্রতিদিন গুগলে একটু একটু করে সময় দিতে হবে। এখন বলতে পারেন, গুগলে আবার কি সময় দেব? গুগল থেকে সার্চ করে অনলাইন থেকে আয় করা যায় এই বিষয়গুলো সার্চ করুন তারপর নিজেকে প্রস্তুতি নিন আপনি কি বিষয়ের উপর কাজ করবেন। বুঝলেন নাতো? বুঝে বলছি, আপনি যদি ওয়েব ডিজাইনের উপর যদি কাজ করতে চান তাহলে সেই বিষয় গুলো গুগলে সার্চ করে ভালো ভালো আর্টিকেলগুলো পড়ুন এবং নিজেকে কিছুটা প্রস্তুতি নিন। তারপর ভালো কোন ট্রেনিং সেন্টার থেকে কাজ শিখে নেমে পড়ুন আসাকরি সফলতা আসবে।

আসুন জেনেনেই কোন কোন সাইট থেকে আয় করা যায়।

আপওয়ার্কঃ– যতগুলো ফ্রিল্যান্সিং সাইট আছে তার মধ্যে সব থেকে জনপ্রিয় সাইট হচ্ছে, আপওয়্যার্ক। এই আপওয়ার্ক সাইটের পূর্বনাম ছিল ওডেক্স। বর্তমানে এই সাইটি খুব জনপ্রিয়। এই সাইটে ঘন্টা ভিত্তিক এবং ফিক্সট সময় নিয়ে কাজ করতে পারবেন। সাইটে কাজ করতে চাইলে আগে কাজ শিখে নিতে হবে। ডালার ট্র্যান্সফার করার জন্য পেপাল, পাইওনিয়ার অথবা ব্যাংক ট্র্যান্সফার করতে পারবেন।

ফ্রিল্যান্সার ডট কমঃ- এই সাইট নিয়ে তেমন কি বলব। পৃথিবীতে যত ইন্টারনেট থেকে আয় করার সাইট আছে তার মধ্যে জনপ্রিয় এবং প্রথম সারির সাইট হচ্ছে, ফ্রিল্যান্সার ডট কম। এই সাইটে প্রচুর জব রয়েছে। এই সাইটির হেড অফিস অস্ট্রেলিয়ায়। ফ্রিল্যান্সার ডটকম থেকে অর্জিত অর্থ উত্তোলন করার জন্য আছে পেপাল, স্ক্রিল, পাইওনিয়ার এবং ব্যাংক ট্র্যান্সফার সিস্টেম।

ফাইভারঃ- ফাইবার সাইটে ছোট খাটো কাজ থেকে বড় ধরনের কাজ পাওয়া যায়। এখানে যে ধরনের কাজ পাওয়া যাবে, আর্টিকেল রাইটিং, লোগো ডিজাইন, ভয়েস রেকর্ড ইত্যাদি। ফাইবার সাইটে সব থেকে বড় সুবিধা হচ্ছে, ৫ ডলার থেকে শুরু করে যে কোন বড় অ্যামাউন্টের কাজ পাবেন। ফাইভার থেকে আয়কৃত অর্থ তোলার জন্য পেপাল, পাইওনিয়ার এবং ব্যাংক ট্র্যান্সফার পদ্ধতি ব্যবহার করতে পারেন।

পিপল পার আওয়ারঃ- অনলাইনে আয় করার অন্যতম জনপ্রিয় সাইট।এটি লন্ডন, যুক্তরাজ্যভিত্তিক পিপল পার আওয়ার। এই সাইটে ফিক্সড প্রাইজ এবং ঘন্টা ভিত্তিক কাজ করা যায়। পিপল পার আওয়ার থেকে আয়কৃত অর্থ তোলার জন্য পেপাল, স্ক্রিল, পাইওনিয়ার এবং ব্যাংক ট্র্যান্সফার পদ্ধতি ব্যবহার করতে পারেন।

বিল্যান্সার ডট কমঃ- বিল্যান্সার সাইট বাংলাদেশী ফ্রিল্যান্সারদের জন্য খুব সুবিধা। বর্তমানে এখানে শুধু ফিক্সড প্রাইসের জব আছে। আপনি চাইলে বিল্যান্সারে রেজিস্ট্রেশন করে আপনার ফ্রিল্যান্সিং ক্যারিয়ার শুরু করতে পারেন।

প্রিয়, টেক বাংলা ব্লগ এর বন্ধুগণ পোষ্টটি আপনাদের কেমন লাগল তা অবশ্যই জানাবেন। আরও ভালো টেকনোলজি পোষ্ট পেতে নিয়োমিত সাথে থাকুন। আপনিও লিখতে পারেন Tech Bangla Blog সাইটে।

Add comment